ব্যাকলিঙ্ক কি? ডু ফলো, Profile backlink, লিংক বিল্ডিং Backlink – অফ পেজ এসইও A to Z

ব্যাকলিঙ্ক বা ব্যাকলিংক যেভাবেই বলেন ২টি একই বিষয়। ব্যাকলিংক কে সহজে বুঝতে এটাকে রেফারেন্স হিসাবে দেখতে পারেন। একজন ব্যক্তি আরেকজন ব্যক্তির সুপারিশ নিয়ে অফিসে গেলে তাকে আলাদা ভাবে ট্রিট করা হয়। যার সুপারিশ ক্ষমতা যত বেশি তার সুপারিশে যাওয়া ব্যক্তিকে তত বেশি সম্মান, সুবিধা দেওয়া হয়। ব্যাকলিঙ্ক হলো তেমন ই। 

Backlink কাকে বলে

আপনার ওয়েবসাইট কে যেসব ওয়েব সাইট লিঙ্ক দিয়ে সুপারিশ করছে বা রেফার করছে সেই ওয়েব সাইট থেকে পাওয়া লিঙ্ক গুলোই ব্যাকলিঙ্ক। 
ধরুন আপনার ওয়েবসাইটের নাম Chitaporadh.com কে আমি আমার এই সাইট থেকে কোন আর্টিকেলের মধ্যে আপনার সাইট কে সোর্স হিসাবে উল্লেখ করে লিঙ্ক দিলাম। তখন আমার সাইট থেকে পাওয়া আপনার ওয়েবসাইটে এই লিঙ্ক টাই আপনার জন্য ব্যাকলিঙ্ক। 

ব্যাকলিঙ্ক কি জরুরী? 

জী জরুরি। আপনি যদি আপনার ব্লগ বা ওয়েব সাইট কে গুগলের সার্চ রেজাল্টে উপরের দিকে আনতে চান তাহলে আপনার ব্যাকলিঙ্ক লাগবে। 
ঐ যে শুরুতেই বলেছিলাম যার সুপারিশ ক্ষমতা যত বেশি তার সুপারিশে আসা ব্যক্তির সম্মান ও তত বেশি। ব্যাকলিঙ্ক এর ক্ষেত্রেও সেম। আপনাকে যত বেশি অথোরিটি সম্পন্ন ওয়েবসাইট লিঙ্ক দিবে গুগল আপনার সাইট কে তত বেশি সম্মান করবে।
ধরুন আপনি কোন ব্যাপারে নিউজ পাবলিশ করেছেন আর সেই নিউজের পোস্টে বিবিসি কিংবা আল জাজিরা লিঙ্ক দিয়েছে নিউজের মূল সোর্স হিসাবে। এখন আপনার সাইটের ঐ পোস্ট কে গুগল ট্রাস্টেড হিসাবে দেখবে যেহেতু বিবিসি আল জাজিরার মত সুনামধন্য ওয়েবসাইট আপনার সাইটকে রেফার করেছে। 
অনেক গুলো লো কোয়ালিটি সাইট থেকে শত শত লিঙ্ক নেওয়ার চাইতে কয়েকটি বেশি অথোরিটির ওয়েব সাইট থেকে ব্যাকলিঙ্ক নেওয়া বেশি কার্যকর।

রিলেভেন্ট ব্যাকলিঙ্ক কি?

রিলেভেন্ট শব্দটা থেকেই বুঝা যাচ্ছে এটা কি জিনিস! ধরুন আপনার ওয়েবসাইট এর মূল টপিক মোবাইল এর দাম, কনফিগারেশন ইত্যাদি। আর আপনি ব্যাকলিঙ্ক নিয়েছেন প্রেমের গল্প মূলক ওয়েবসাইট থেকে।২টা ওয়েবসাইট কি কোন ভাবেই রিলেটেড? উত্তর হলো না।

ব্যাকলিঙ্ক কি কাকে বলে


গুগল টপিক রিলেটেড ব্যাকলিঙ্ক কে বেশি মূল্যায়ন করে। অহেতুক যেখান থেকে পারি সেখান থেকে লিঙ্ক নেই এমন ভাবে ব্যাকলিঙ্ক করলে আপনার তেমন লাভ হবে না বরং স্প্যাম এর কারনে পেনাল্টি খেতে পারেন। 
আপনার সাইট মোবাইল নিয়ে হলে আপনি ব্যাকলিঙ্ক নিবেন মোবাইল, ইন্টারনেট, প্রযুক্তি, কম্পিউটার ইত্যাদি ওয়েবসাইট থেকে। যাদের সাথে আপনার সাইটের মূল টপিকের মিল আছে তাদের থেকে। 

ডু ফলো ব্যাকলিংক কি

কোন সাইট কে লিঙ্ক করার সময় ওয়েবসাইটে কিছু অপশন থাকে। যেমন ডু ফলো, নো ফলো ইত্যাদি।ডু ফলো এর  অর্থ হলো সার্চ ইঞ্জিন বট আপনার সেই লিঙ্ক কে ফলো করবে, জুস পাস করবে।
আর নো ফলো এর অর্থ হলো এই লিঙ্ক কে সার্চ ইঞ্জিন ফলো করবে না, জুস পাস করবে না।
ডু ফলো নো ফলো শব্দ গুলো থেকেই এদের মূল অর্থ বুঝা যায়। যেসব লিঙ্ক কে ফলো করতে বলা হয় সেসব লিঙ্ক গুলোর কার্যকারিতা বেশি। এজন্য ব্যাকলিংক এর জন্য সবাই ডু ফলো ব্যাকলিংক নিতে চাই।

নো ফলো ব্যাকলিংক

নো ফলো ব্যাকলিংক একদম কোন ভ্যালু রাখে না এমন না। নো ফলো ব্যাকলিংক ও সাইটের রেঙ্ক করতে হেল্প করে। আপনার সাইটের জন্য সব ব্যাকলিংক নো ফলো হলে বা সব লিঙ্ক ডু ফলো হলে সেটা গুগল স্বাভাবিক ভাবে দেখে না। এজন্য এসইও এক্সপার্টরা ডু ফলো এবং নো ফলো ব্যাকলিংক এর মধ্যে একটা ব্যালান্স রাখতে বলে থাকে।

Profile backlink কি

বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া এবং অন্য ওয়েবসাইটে আপনি আপনার জন্য প্রোফাইল খুলে সেখানে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য  লিঙ্ক করলে সে লিংক কে Profile backlink  বলে।
ধরুন আপনি টুইটারে একাউন্ট খুলে সেখানে বায়ো তে আপনার ব্লগের লিংক দিয়েছেন। এই লিংকটিই Profile backlink হিসাবে পরিচিত। 
বর্তমানে Profile backlink  এর তেমন একটি ভ্যলু নাই। ডুলো ফলো নো ফলো লিংক এর মধ্যে ব্যালান্স করতে অনেকে এখনো প্রোফাইল ব্যাকলিংক করে থাকে। এটুকুই এর কাজ। 

internal Backlink কি ?

ইন্টারনাল বলতে অভ্যন্তরীণ লিংক বুঝায়। অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটের একটা পোস্ট থেকে আরেক পোস্টে যখন লিংক করেন তখন সেই লিংক আপনার ওয়েবসাইটের অভ্যন্তরেই থাকে,  এই ধরনের লিংক গুলোকেই ইন্টারনাল ব্যাকলিংক বলা হয়।

External Backlink 

এটা ইন্টারনাল ব্যাকলিংক এর ঠিক বিপরীত। অন্য কোন ওয়েবসাইট থেকে আপনার ওয়েবসাইটে যখন কোন লিংক দেওয়া হবে সেই লিংকটি আপনার সাইটের জন্য এক্সটারনাল ব্যাক্লিঙ্ক  বলা হবে।
ওয়েবসাইটের বাউন্স রেট কমাতে ইন্টারনাল লিঙ্কিং বেশ জরুরী। শুধু এক্সটারনাল লিঙ্কের পিছনে ছুটলে হবে না। 

গেস্ট পোস্ট ব্যাকলিংক কাকে বলে?

গেস্ট পোস্ট শব্দটা থেকে বুঝা যায় অতিথির পোস্ট! অর্থাৎ সাইটের রেগুলার লেখক না। গেস্ট হিসাবে কোন সাইটে আপনি যখন পোস্ট করবেন সেই পোস্টে আপনার সাইটের জন্য ব্যাক্লিঙ্ক  নিবেন সেটাই গেস্ট পোস্ট ব্যাকলিংক হিসাবে পরিচিত।
মনে করুন আমি আমার ওয়েবসাইটের জন্য আপনার সাইট থেকে লিংক নিবো, এজন্য আপনার সাইটে পোস্ট করার জন্য আমি একটি পোস্ট লিখে দিলাম। এই যে গেস্ট হিসাবে আমি আপনার সাইটে পোস্ট লিখছি এবং লিংক নিচ্ছি এটাই গেস্ট পোস্ট ব্যাকলিঙ্ক।
যত ধরনের ব্যাকলিঙ্ক বর্তমানে বেশি কার্যকর তার মধ্যে গেস্ট পোস্ট লিঙ্ক অন্যতম। যেহেতু এই ধরনের লিঙ্ক মূল আর্টিকেল এর মধ্যে থেকে আসে  এবং ডু ফলো হয় তাই সাইটের অথোরিটি বাড়াতে গেস্ট পোস্ট লিঙ্ক বিল্ডিং বেশ কার্যকর ভূমিকা রাখে।

লিংক বিল্ডিং বা অফ পেজ এসইও কি? সেও?

একটি সাইটের  এসইও ২ধাপে করা হয়। একটি সাইটের মধ্যেই আরেকটি সাইটের বাইরে। আপনার সাইটের ডিজাইন, লোডিং স্পিড বৃদ্ধি করা, মূল আর্টিকেল এর হেডীং ট্যাগ, ছবি ইত্যাদি অপ্টিমাইজ করা হলো অন পেজ এসইও।
আপনার সাইটের বাইরে অন্য সাইটে আপনার লিঙ্কিং করা, ছবি শেয়ার করা, ব্র্যান্ড প্রমোট করা, ইত্যাদি হলো অফ পেজ এসইও।
সংক্ষেপে আপনার সাইটের মধ্যে যেসব অপ্টিমাইজের কাজ হয় সেগুলো ওন পেজ এস ই ও । এবং সাইটের বাইরে অন্যদের সাইটে যেসব কাজ করা হয় সেগুলো অফ পেজ সেও।
যেহেতু লিঙ্ক বিল্ডিং বা ব্যাকলিঙ্ক করা হয় অন্যদের সাইটে তাই এটি অফ পেজ এসইও এর মধ্যে পড়ে। 
আশা করি অফ পেজ এসইও কি এর উত্তর পেয়েছেন। 

টেকনিক্যাল এসইও কি

 ওয়েব সাইটে বিভিন্ন রকম কোডিং এর ব্যাপার আছে, সার্ভার সেটিংস, লোডিং টাইম, ক্যানোনিক্যাল, ৪০৪ রিডাইরেক্ট ইত্যাদি বিভিন্ন রকম টেকনিক্যাল বিষয় গুলো অপ্টিমাইজ করাকেই টেকনিক্যাল এসইও  বলে।

  • অফ পেজ এসইও টিউটোরিয়াল
  • অন পেজ এসইও কি
  • মোবাইল দিয়ে এসইও
  • ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আয় হয়
  • এসইও কিভাবে শিখবো
  • লিংক বিল্ডিং

আশা করি ব্যাকলিঙ্ক এবং অফ পেজ SEO নিয়ে আপনার মনের অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে পেরেছি। এসইও অনেক বিস্তৃত একটি টপিক। বিশাল একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে ফেলা যায় এই টপিকে আর্টিকেল লিখে। সেখানে একটি পোস্টে অফ পেজ সেও সম্পূর্ণ ভাবে কাভার করতে পারবো এমন ভাবা ভুল।

আমি চেষ্টা করেছি যারা নতুন তাদের কে হিন্টস দিতে এবং সহজ ভাষায় বুঝাতে। অনেক ভারি ভারি শব্দের প্রয়োগের চাইতে আমাদের নিজেদের ভাষায় বুঝাতে পারলে অনেক কিছু সহজ হয়ে যায়।

ভালো লাগলে শেয়ার করবেন। সালাম।

Leave a Comment