গুগল ম্যাপে নিষিদ্ধ ১৮ টি লোকেশন এর বিস্তারিত ও ছবি

 গুগল ম্যাপ, স্যাটেলাইট ভিউ কিংবা গুগল আর্থ যায় বলেন না কেনো এগুলো হলো টেক জায়ান্ট গুগল কোম্পানির স্যাটেলাইট ভিত্তিক লোকেশন সার্ভিস। গুগল ম্যাপ এর স্যাটেলাইট ভিউ থেকে আমরা ঘরে বসে বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন শহর গ্রাম রাস্তা ইত্যাদি দেখতে পায়। কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে ব্যাতিক্রম আছে। কিছু লোকেশন আপনি গুগল ম্যাপ এ দেখতে পাবেন না। লোকেশন গুলো ব্লার করা থাকে।  সেই লোকেশন গুলোতে আসলে কি আছে? কেনো সেগুলো দেখানো হয় না? আসুন জেনে নেই এমন কিছু লোকেশন এর নাম ও তাদের ছবি । 

ব্যবিলনের ঝুলন্ত বাগানঃ 

ছোট বেলায় মনে হয় সাধারন জ্ঞান বই এ পড়েছেন এই নামটি। ব্যবিলনের ঝুলন্ত বাগান ইরাকে অবস্থিত। আপনি গুগল ম্যাপ থেকে এটি সার্চ করে বের করলে দেখবেন লোকেশন এরিয়া ব্লার করে দেওয়া আছে।

ব্যবিলনের ঝুলন্ত বাগান pic

Ariel Castro এর বাড়ি

এই বাড়ির সাথে আমেরিকার অন্যতম এক ক্রিমিনাল  জড়িত। Ariel Castro নামের এক ব্যক্তি ৩ জন মেয়ে কে প্রায় ১১ বছরের বেশি সময় ধরে এই বাড়িতে কিডন্যাপ করে আটকে রেখেছিলো। দীর্ঘ ১১ বছর আটকে থাকার পর Ariel Castro এর অনুপস্থিতিতে এক মেয়ে পুলিশে ফোন করে উদ্ধার পায়। 

যদিও অথোরিটি বাড়িটি ধ্বংস করে ফেলেছে কিন্তু গুগল ম্যাপের স্ট্রিট ভিউতে এখনো বাড়িটি দেখা যায় তবে ব্লার করা অবস্থায়!!

ক্রিমিনাল এর বাড়ি  ছবি

রাশিয়ার Jeannette দ্বীপ ঃ

রাশিয়ায় অবস্থিত এই দ্বীপ টি গুগল স্যাটেলাইট ভিউ এ ব্লার করে রাখা। কেনো দ্বীপ টি ব্লার কয়া তা অজানা । কারো কারো মতে সেখানে হইতো রাশিয়ার কোন মিলিটারি বেজ আছে বা এমন কিছু। 

রাশিয়ার ছবি ডাউনলোড

ফ্রান্স এর নিউক্লিয়ার সাইট Marcoule  

ফ্রান্স নামের এক হারামি দেশ আছে যে দেশের অধিকাংশ নাগরিক অফিসিয়ালি হারামি। সেই ফ্রান্স তাদের নিউক্লিয়ার সাইট গুগল ম্যাপে ব্লার করে রাখতে বলেছে। জেনে রাখা ভাল ফ্রান্স তাদের নিউক্লিয়ার বোমার সব বিস্ফোরণ মুসলিম দেশ আলজেরিয়াতে করেছে। আলজেরিয়া গণহত্যা, রুয়ান্ডা গণহত্যার সাথে ফ্রান্স জড়িত।  

ফ্রান্স এর নিউক্লিয়ার বোমা

স্পেনের The Yard of Orange Trees 

অন্য লোকেশন গুলোর সাথে এই লোকেশন এর একটি বড় পার্থক্য হলো গুগলে যেসব জায়গা ব্লার করা থাকে সেসব জায়গা গুলো তে সবার এক্সেস থাকে না। টুরিস্ট যেতে পারে না। অনেক কড়াকড়ি আরোপ থাকে কিন্তু স্পেনের এই জায়গা টি আসলে কোর্ট হাউজ , সরকারি অফিস এবং এখানে ভিজিটররা প্রবেশ করতে পারে। ভিজিটররা প্রবেশ করতে পারার পরেও কেনো এই জায়গা ব্লার করা তা একটি রহস্য। 

 Faroe Islands

ডেনমার্ক এর একটি দ্বীপ। এই দ্বীপ এর এক অংশ দেখা গেলেও আরেক অংশ ব্লার করা। 

আমেরিকার HAARP এরিয়া।

হারপ এরিয়া নামের কোন এরিয়া নাই, এটি মার্কিন মিলিটারির একটি রিসার্চ প্রোগ্রাম। সহজে বুঝার জন্য হারপ এরিয়া  নামে বলতিছি। 

Defense Advanced Research Projects Agency (DARPA) আর আমেরিকান মিলিটারির যৌথ এই প্রোগ্রাম আলাস্কায় অবস্থিত। এবং এটিও ব্লার করে দেওয়া। 

HAARP এর এরিয়া ব্লার করা থাকবে এটা বুঝতে কষ্ট হওয়ার কথা না কেননা  Area 51 এর মতই HAARP ও ওদের একটি সিক্রেট অপারেশন। HAARP মূলত আবহাওয়া কে অস্র হিসাবে ইউজ করার মত কাজেও নিয়োজিত ( যদিও তা প্রমানিত না, আমেরিকাও স্বীকার করেনি) 

সাউথ কোরিয়াঃ 

সাউথ কোরিয়ার পশ্চিম তীর ব্লার করে দেওয়া। বলে রাখা ভালো উত্তর কোরিয়ার ও পশ্চিম তীর ব্লার করা!! উত্তর কোরিয়া বিভিন্ন সিক্রেট অপারেশনে আছে এজন্য ওদের অংশ ব্লার করা স্বাভাবিক কিন্তু দক্ষিন কোরিয়া কেন? 

ওভাল অফিসঃ 

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট এর অফিস কে অফিসিয়ালি ওভাল অফিস বলা হয়। আর যেখানে সে থাকে তাকে White House বলা হয়। হোয়াইট হাউজ দেখা গেলেও ওভাল হাউজ গুগলে ব্লার করা।

ইজরায়েল ঃ

জি সম্পূর্ণ ইজরায়েল দেশ টিই বলতে গেলে গুগলে ব্লার করা। প্রথমে যখন দেখবেন তখন সব স্বাভাবিক মনে হবে কিন্তু জুম করে ক্লিয়ার ভাবে দেখতে গেলে দেখবেন ইজরায়েল দেশটি ব্লার করা এবং ইজরায়েল এর অংশটি লো রেজুলেশনে থাকে। শুধু গুগল না, আমেরিকা ভিত্তিক যেকোনো স্যাটেলাইট সার্ভিস ই ইজরায়েল এর লোকেশন ঝাপসা করে দেই। এটি ইজরায়েল আর আমেরিকার একটি চুক্তির জন্য করা হয়ে থাকে। 

( আহারে! চুরি করে দেশ দখল করলে স্যাটেলাইট ছবিকেও ভয় পেতে হয়!!!! হিহিহি) 

Area 51

এরিয়া ৫১ এর নাম হইতো অনেকেই শুনেছেন এবং এও জানেন এটি একটি সিক্রেট এরিয়া যেখানে আমিরকার মিলিটারির গোপন রিসার্চ করা হয়ে থাকে। স্বাভাবিক তারা এই এরিয়া কে ব্লার রাখবে। অবাক হওয়ার কিছু নাই। 

সৌদি আরামকো ঃ

উপরের লোকেশন গুলো আমি আলাদা আলাদা ওয়েব সাইট থেকে পেয়েছি কিন্তু সৌদির আরামকোর লোকেশন টি আমি অপ্রস্তুত অবস্থায় নিজেই দেখছি। গুগল ম্যাপ কিংবা অন্য আরেকটি স্যাটেলাইট ম্যাপ সার্ভিস এপ থেকে সৌদি আরব দেখার সময় আরামকো কোম্পানির এরিয়া দেখতে গিয়ে দেখি তা ব্লার করে দেওয়া। 

( আরামকো তে হুথিরা মিসাইল হামলা করছে কয়েকবার) বলে রাখা ভালো আরামকো হলো সৌদির তেল কোম্পানির নাম।  

কোস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর:

গ্রিসের কোস দ্বীপে অবস্থিত, এই বিমানবন্দরটি মূলত চার্টার বিমান এর জন্য যারা দর্শনার্থীদের দ্বীপে নিয়ে আসে।গ্রীসের আরো একটি বিমান বন্দর ব্লার করা আর সেটি হলো ক্লেমনোস দ্বীপ জাতীয় বিমানবন্দর।

আমচিটকা দ্বীপ – আলাস্কা:

আলেউটিয়ান চেইনে এই দ্বীপটি অনুসন্ধান করুন এবং আপনি দেখতে পাবেন যে দ্বীপের অর্ধেকেরও বেশি অস্পষ্ট। 1950 এর দশকের শেষের দিকে, আমচিটকাকে ভূগর্ভস্থ পারমাণবিক পরীক্ষার জন্য স্থান হিসাবে মার্কিন পরমাণু শক্তি কমিশন দ্বারা নির্বাচিত করা হয়েছিল ।

আমচিটকা দ্বীপে তিনটি ভূগর্ভস্থ পারমাণবিক পরীক্ষা করা হয়েছিল: লং শট, ১৯৬৫ সালে একটি ৮০ কিলোনের বিস্ফোরণ, ১৯৬৯ সালে মেলো, একটি ১৯-মেগাটন বিস্ফোরণ এবং ক্যানিকিন, ১৯ in১ সালে একটি বৃহত্তম মেগাটন বিস্ফোরণ।

সিয়াটেল মেয়রের বাড়ি:

২২ শে জুন, ২০২০, বিক্ষোভকারীরা সিয়াটেলের মেয়র জেনি ডুরকানের বাড়িতে যাত্রা করে। জেলা অ্যাটর্নি হিসাবে ডুরকানের আগের কাজের কারণে, তার বাড়ি গুগল ম্যাপস স্ট্রিট ভিউতে ঝাপসা হয়ে আছে।

বাটিন – রাশিয়া:

মস্কো ওব্লাস্টের মধ্যে অবস্থিত এই শহরের বেশ কয়েকটি বিল্ডিং সাদা এবং আরও বেশ কয়েকজনকে সাদা রঙের উপর দিয়ে সজ্জিত করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে । এই ভবনগুলিকে অস্পষ্ট করার কারণ জানা যায়নি।

Leave a Comment

Copy link
Powered by Social Snap