ইয়াহু কি কাকে বলে এবং ইয়াহুর ইতিহাস : Dhurr24.com

আজকের অনেকেই হইতো ইয়াহুর সাথে পরিচিত না কিন্তু ইন্টারনেটের শুরুর দিকের হিরো বলা চলে ইয়াহু কে। এখন যেমন গুগল বললে মোটামোটি সবাই চিনে জানে যে গুগল কি তেমন এক সময় ছিলো যখন সবার কাছে ইয়াহু পরিচিত ছিলো। বলা যায় সময়ের সাথে সাথে নোকিয়ার মত ইয়াহুও হারিয়ে গেছে কিংবা হারিয়ে যাওয়ার পথেই আছে। আজকের পোস্টে টেক জায়ান্ট ইয়াহু নিয়ে জানানোর চেষ্টা করবো। 

ইয়াহু কি?

ইয়াহু হলো গুগলের মত একটি সার্চ ইঞ্জিন সাইট। অর্থাৎ নেটে কিছু সার্চ করে বের করার ওয়েব সাইট এর নাম। ২০০০ সালের আগে গুগল এখনকার মত জনপ্রিয় ছিলো না, তখন সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিনের মধ্যে ইয়াহু ছিলো টপ লেভেলের একটা কোম্পানি। 

১৯৯৪ সালের জানুয়ারি মাসে আমেরিকাতে ইয়াহুর যাত্রা শুরু হয়। ৯০ এর দশকে এটি সর্বাধিক জনপ্রিয় ওয়েব সাইট ছিলো। এখনো কিছুটা আছে তবে ধুকে ধুকে আরকি!!

Yahoo এর জনক প্রতিস্ঠাতা হলেন Jerry Yang এবং David Filo নামের দুজন।

ইয়াহু মেইল ও ইতিহাস

ইয়াহু কেনো জনপ্রিয়তা হারালো?

যখন এই সার্চ ইঞ্জিন যাত্রা শুরু করে তখনকার সেই সময় কে বলা হয় Dot Com Bubble অর্থাৎ ৯০ এর দশকে আমেরিকাতে ইন্টারনেট কম্পিউটার কেন্দ্রিক বিজনেস, নতুন নতুন সাইট ইত্যাদি খুবি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলো এবং এর সাথে সাথে এসব অনলাইন কোম্পানি গুলোর মার্কেট শেয়ার এর ভেলুও অনেক বেড়ে গেছিলো। কিন্তু ২০০১ সালে Dot Com Bubble Brust নামের ঘটনায় এমন অনলাইন ভিত্তিক কোম্পানি গুলোর শেয়ার মার্কেট ভেলু তে ধ্বস নামে। অনেক কোম্পানি দেউলিয়া হয়ে যায় আবার অনেক কোম্পানি ধাক্কা সামলে উঠে। 

ইয়াহু ধাক্কা সামলে সামনে আগাতে পারলেও পরে অন্য প্রতিযোগী যেমন গুগল এর সাথে পেরে উঠতে পারেনি। বিশেষ করে ডাটা হ্যাক এর মত ঘটনায় ইয়াহুর জনপ্রিয়তা অনেকআংশেই কমে যায়। 

ইয়াহুর কিছু সার্ভিস এর তালিকা 

ইয়াহুর সার্চ ইঞ্জিন সার্ভিস ছাড়াও আরো কিছু সার্ভিস আছে যেমন Yahoo Answer.

এখানে মূলত বিভিন্ন মানুষ তাদের প্রশ্ন করে থাকে এবং যারা জানে তারা সেসব প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকে। ফামিলি, নিউজ, খেলাধুলা ইত্যাদি বিভিন্ন ভাগে এটি ভাগ করা আছে।

ইয়াহু মেইল

জিমেইল এর সাথে তো পরিচিত, না? জিমেল ছাড়াও আরো অনেক মেইল সার্ভিস অনলাইনে আছে। অনেক। তার মধ্যে ইয়াহুর মেইল ও অন্যতম। yahoo ১৯৯৭ সালে রকেট মেইল কিনে নেই এবং পরে একে ইয়াহু মেইল নাম দেয়। 

ইয়াহুর ইতিহাস ( টাইমলাইন)

১৯৯৪ঃ জানুয়ারিতে জেরি এবং ফিলো মিলে জেরিস গাইড টু WWW নামের সাইট তৈরি করে এবং পরে তা রিনেম করে রাখে ইয়াহু। 

১৯৯৫ঃ কর্পোরেট জগতে প্রবেশ। 

১৯৯৬ঃ পাবলিক শেয়ার মার্কেটে অংশ গ্রহন। 

১৯৯৭ঃ ৯৪ মিলিয়ন দিয়ে Four11 কিনে নেওয়া। 

১৯৯৮ঃ ইয়াহুর মেইল সার্ভিস এর শুরু 

১৯৯৯ঃ ৫.৭ বিলিওন ডলার দিয়ে ব্রডকাস্ট ডট কম কিনে নেয়।  

২০০৮ সালে মাইক্রোসফট কোম্পানি ৪৪.6 বিলিওন ডলার দিয়ে ইয়াহু কিনে নিতে আগ্রহি হলেও ইয়াহু রাজি হয়নি। দুঃখের কথা হলো সেই ইয়াহুর বর্তমান ভেলু ৫ বিলিওন এর মত!!! 

ইয়াহু

2001: ইয়াহু যেমন ডটকম বুস্টের দ্বারা আক্রান্ত হলে, চিফ এক্সিকিউটিভ টিম কোগল, যিনি 1995 সাল থেকে এই কোম্পানির নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি পদ থেকে সরে যান।


সেপ্টেম্বর 2001: ইয়াহুর শেয়ারগুলি সর্বকালের সর্বনিম্ন নীচে চলে যায়।


2002: মিঃ সেমেল প্রায় 3 বিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে গুগল কেনার চেষ্টা করেছিলেন তবে তে গুগল রাজি হয়নি। গুগলের সহ-প্রতিষ্ঠাতারা 5 বিলিয়ন ডলার চান বলে জানা গেছে।

2003: ছোট সার্চ ইঞ্জিনগুলি কিনে ইয়াহু ইয়াহু.কম-এ ওয়েব অনুসন্ধান ফাংশনটিকে পাওয়ার জন্য তাদের ওয়েব ক্রলিং প্রযুক্তি ব্যবহার শুরু করে।

জানুয়ারী 2009: কার্ল Bartz, সাবেক প্রধান নির্বাহী অটোডেস্ক , প্রধান নির্বাহী হিসেবে ইয়াহু যোগদান পর জনাব ইয়াং নভেম্বর 2008 সালে পদত্যাগ করেন।


সেপ্টেম্বর ২০১১: রাজস্ব আয় অব্যাহত থাকায় এবং এমএস বার্টজ চলে যাওয়ায় বিজ্ঞাপনের ক্ষতি হতে শুরু করে।

Leave a Comment

Copy link
Powered by Social Snap