বাংলায় আর্টিকেল লিখবেন কিভাবে? আর্টিকেল লিখে বিকাশে পেমেন্ট পাওয়ার সাইটের তালিকা এবং কন্টেন্ট রাইটিং টিপস

ভালো মানের আর্টিকেল লেখার নিয়ম 

আর্টিকেল লিখে এখন অনেকেই বেশ ভালো মানের টাকা ইনকাম করছে। ইংরেজিতে ভালো রাইটার হলে প্রতি মাসে লাখ টাকার বেশি আয় করাও সম্ভব। বাংলাদেশে বাংলা ভাষায় আর্টিকেল লিখে আয় করার সুযোগ আগের চেয়ে এখন বৃদ্ধি পাচ্ছে। নতুন নতুন ওয়েব সাইট তৈরি হচ্ছে, সেসব ওয়েব সাইটের জন্য বিভিন্ন টপিকের উপর লেখার প্রয়োজন হয়। এজন্য অনেকে আর্টিকেল লিখিয়ে নিয়ে টাকা পে করে।

আমি আজকে এই পোস্টে আর্টিকেল লেখার নিয়ম, বাংলা আর্টিকেল লিখে বিকাশে পেমেন্ট নিয়ে আয় করার ওয়েব সাইট সমূহের তালিকা, ব্লগারদের প্রতারনা থেকে বাচার উপায় এবং ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করবো। আশা করবো পুরা লেখাটি পড়লে আর্টিকেল লেখা এবং আয় করা নিয়ে আপনার অনেক প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। 

১ জ্ঞান বৃদ্ধি করুন

আপনি যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখতে চাচ্ছেন সেই বিষয়ে আপনার নিজের জ্ঞান বৃদ্ধি করুন। আরেকজনের আর্টিকেল দেখে দেখে নিজে কথা ঘুরিয়ে লিখে ইউনিক আর্টিকেল বানিয়ে লাভ নাই। এই ধরনের লেখার মান ভালো হয় না।

আপনি যখন কোন টপিকের উপর ভাল জ্ঞান রাখবেন তখন আপনি আপনার নিজের মত করে স্বাধীন ভাবে লেখা লিখতে পারবেন। তখন অন্যকে ওয়ার্ড বাই ওয়ার্ড কপি করা লাগবে না। পাঠকরাও আপনার লেখা সহজে পড়তে পারবে।

এজন্য কোন টপিকে কিছু লেখা শুরুর আগে সেই টপিক নিয়ে রিসার্চ করুন। 

২। ভ্যালু এড করুন। 

আপনি যে বিষয় নিয়ে লিখতে চাচ্ছেন সেই বিষয়ে আরো আগে থেকেই আরো অনেক লেখা আছে। এখন আপনার নতুন এই লেখা মানুষ পড়বে কেনো? 

আমি বললাম বাংলাদেশের জাতীয় গাছ আম, আপনিও বললেন জাতীয় গাছ আম । এটুকু বলেই শেষ করলেন তাহলে আপনার থেকে গ্রাহকরা নতুন কি পেলো? আমি আগে যা দিয়েছি সেটাই তো তারা আপনার থেকে পাচ্ছে? আপনি নতুন কি যোগ করলেন যার কারনে অন্যরা আপনার লেখা পড়বে?

আপনাকে বলতে হবে কবে থেকে বাংলাদেশের জাতীয় গাছ আম? কে আম গাছ কে জাতীয় গাছ হিসাবে ঘোষণা দিয়েছে? কত সালে? ইত্যাদি অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।

আপনি যখন অন্যদের থেকে বেশি তথ্য, বেশি সহজে লিখতে পারবেন তখন আপনার ব্লগের রিডাররা আপনার লেখা পড়তে আগ্রহি হবে।

আর্টিকেল লেখার নিয়ম এবং বিকাশে পেমেন্ট

৩। পয়েন্ট আকারে লিখুন

এক সাথে আগা গোড়া রচনা না লিখে বিভিন্ন টপিক কে বিভিন্ন পয়েন্ট করে করে লিখুন। ছোট ছোট প্যারাগ্রাফ করে লিখুন। 

হিজিবিজি লেখা হলে মানুষের জন্য সেই লেখা পড়তে কষ্টকর হয়ে যায়, মনোযোগ রাখা যায় না এজন্য অনেকেই এমন হিজিবিজি লেখা দেখলে না পড়েই চলে যায়।

আপনার লেখা কে পয়েন্ট পয়েন্ট করে লিখুন। 

৪। রিপিট করবেন না

অনেকে আছে দেখবেন কথা বলার সময় একই কথা বার বার উম আম উম করে করে রিপিট করে। এভাবে যারা কথা বলে তাদের কথার প্রতি মনোযোগ রাখা যায় না। 

লেখার ক্ষেত্রেও যদি কেউ এমন উম আম  করে করে একই কথা বার বার রিপিট করে তাহলে লেখা পড়ার আগ্রহই নষ্ট হবে। 

৫। লোকাল টনে লিখুন।

আমরা বাংলা ভাষী মানুষ বেশির ভাগই বাংলাদেশি। আমাদের কথার ধরন আর কলকাতার বাংলার ধরন এক না। আপনার ওয়েব সাইট যদি বাংলাদেশ কেন্দ্রিক হয় আর লেখা যদি কলকাতার টনে লেখা হয় তাহলে বাংলাদেশি পাঠকরা সেই লেখা বেশিক্ষন পড়বে না। ভিন দেশি ভিন দেশি একটা ফ্লেভার চলে আসে তখন। 

এজন্য স্বাভাবিক ভাবে আপনার পাঠকরা যেই টনে কথা বলে ও শুনে পরিচিত সে ভাবেই লিখুন। অতি সচেতনতা দেখাতে গিয়ে সাধু ভাষার প্রয়োগ করার মানে নাই।

৬। গভীরে যান

আপনি যা নিয়ে আর্টিকেল লিখবেন সেই বিষয় নিয়ে  ডিটেলস আলোচনা করুন। আর্টিকেল কিভাবে লিখতে হয় এটা জানার জন্য যদি ৫টা পোস্ট পড়া লাগে তাহলে ব্যাপার টা আপনি কিভাবে নিতেন? 

কিন্তু একটা পোস্ট পড়েই যদি  আর্টিকেল লেখার নিয়ম, আর্টিকেল লিখে টাকা আয় করা ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে পারেন তাহলে আপনার জন্য সেই পোস্টটাই কি উত্তম না?

এজন্য আপনি যখন কোন টপিক নিয়ে লিখবেন তখন হালকা হালকা না লিখে বরং বিস্তারিত লিখবেন যাতে যারা পড়বে তারা আপনার আর্টিকেল পড়েই অনেক কিছু জানতে পারে।

৭। বানান চেক করুন

আমি নিজেও দ্রুত লিখতে গিয়ে অনেক বানান ভুল করি। আবার অনেক সময় দেখা যায় শর্ট কাটে এসএমএস লিখতে লিখতে তার প্রভাব লেখাতে চলে আসে। এসএমএস কে  স্মস লিখে ফেলার মত অবস্থা! 

বানানের দিকে খেয়াল রাখবেন। পড়বেন আর পরবেন  এর পার্থক্য বুঝার চেষ্টা করবেন।

৮। প্রুফ রিডিং 

লেখার সময় যতই সতর্ক হোন, বানান ঠিক রাখতে চেষ্টা করার পরেও বানান ভুল হওয়া স্বাভাবিক। এজন্য লেখা শেষ হলে আপনার লেখাটি মনোযোগ সহ ২ বার পড়বেন। পড়ার সময় দেখতে পাবেন আওনার বেশ কিছু ভুল হয়েছে, সেই ভুল গুলি তখন সংশোধন করে নিবেন।

৯। উপসংহার

লেখার শেষে লেখার মূল বিষয় বস্তু সামারি আকারে দিবেন। কোন টিপস, সতর্কতা থাকলে সেগুলোও লিখে দিবেন। 

বাংলা আর্টিকেল কিভাবে লিখবেন সেটা নিয়ে তো জানা হলো। এবার জানানো হবে এই আর্টিকেল লিখে কিভাবে আয় করবেন? কিভাবে বিকাশে পেমেন্ট পাবেন?

আর্টিকেল লিখে আয় করার উপায়ে এবং কিভাবে বিকাশে পেমেন্ট পাবেন?

প্রথমেই কিছু সতর্কতা জানিয়ে রাখি। অনলাইনে প্রচুর প্রতারক আছে। যারা বিভিন্ন ভাবে নতুনদের/ অসহায়দের সাথে প্রতারনা করে ফায়দা লুটে নেই।

আপনি অনলাইন কাজে নতুন? আপনাকে ভং ছং বুঝাই বলবে এত সহজে হাজার হাজার ডলার কামানো যায়, সহজে বিকাশে পেমেন্ট, ব্যাংক লাগবে না ইত্যাদি। তবে আপনি যদি সচেতন না হোন তাহলে তারা আপনার থেকে শুধু কাজই করে নিবে, কাজের পেমেন্ট চাইতে গেলে পল্টি মারবে।

আমি এই পোস্টে যেসব সাইটের তালিকা দিবো তাদের কারো সাথেই আমার কোন পরিচিতি নাই, তাদের কারো সাথে আমি কাজ করিনি। শুধুমাত্র বাহ্যিক দিক বিবেচনা করে, সাইটের কাজ, বয়স এসব দেখে আপনাদের কিছু সাইট এর নাম দিবো। আশা করি এরা প্রতারনা করবে না। ( আমি শিউর না, আপনি নিজেই সব দিক চেক করে কাজ করতে ফাইনাল করবেন)

১। Dhurr24.com – আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশে পেমেন্ট

জী আমি নিজেই আমার সাইটের জন্য লেখাপড়া, টেক, লাইফ স্টাইল সহ নানান রকম সাধারন জ্ঞান ভিত্তিক আর্টিকেল লেখা নিয়ে থাকি। 

প্রতি ১ হাজার শব্দের বাংলা আর্টিকেল এর জন্য ১৫০ টাকা দেওয়া হয়। 

আপনার লেখা আর্টিকেল সাইটে পাবলিশ হলেও টাকা পাওয়ার জন্য আপনি বৈধ হবেন। ১৫০ টাকা আপনার দেওয়া বিকাশে দেওয়া হবে। তবে আর্টিকেল SEO  রুলস মেনে লিখতে হবে এবং ইউনিক হতে হবে। কপি করা আর্টিকেল জমা দিলে এবং আমরা ধরতে পারলে প্রথমেই আপনি বাদ যাবেন। আগে কোন লেখার টাকা জমা থাকলে সেই টাকাও বাতিল হবে। এটা প্রতারনা করার শাস্তি! 

আপনি যদি সৎ ভাবে নিজের আর্টিকেল নিজে লিখে আমাদের সাথে কাজ করতে চান তাহলে আমরাও আপনার সাথে সৎ থেকে কাজ করবো। আপনি ২ নাম্বারি করলে আমরা তো আপনার সাথে সৎ থাকতে পারবো না। 

২। Pratiborton – প্রতি ১০০০ শব্দের আর্টিকেল লিখে ১০০ টাকা ইনকাম করুন

আমি ব্যাক্তিগত এদের রাইটিং এজেন্সি থেকে লেখা কিনেছি কয়েকটি। তাই এদের লেখার মান সম্পর্কে বলতে পারি এরা কপি মুক্ত এবং SEO ফ্রেন্ডলি লেখা ডেলিভার করে থাকে, অন্তত আমাকে দিয়েছে। এদিক থেকে আমি তাদের রিকমেন্ড করতে পারি। 

Pratiborton এর নিজেদের লেখার সার্ভিস দেয় এমন এজেন্সি আছে। আপনি ভালো মানের লেখক হলে তাদের এজেন্সি তে যুক্ত হয়েও কাজ করতে পারবেন। 

তারা ৭০০ – ১০০০ শব্দের লেখার জন্য ১০০ টাকা পে  করে থাকে। এর বেশি শব্দের আর্টিকেল হলে প্রতি ১০০ শব্দের জন্য ১০ টাকা করে বৃদ্ধি পাবে।  আর্টিকেল লিখে তাদের থেকে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 

৩। j it  – পোস্ট লিখে টাকা আয়

আমার কাছে এদের লেখা, ওয়েবসাইট ২টাই কিছুটা হিজিবিজি লাগে। তাছাড়া এদের সাইট এবুং সাইটের কাজের ধরন আগের পিপিসি সাইটের মত যেখানে লোভ দেখানো হয় অনেক কিন্তু ভিতরে প্রতারনা থাকে।

যদিও আমি এদের ব্যাপারে ভালো খারাপ কিছু বলছি না কারন আমি নিজে তাদের সাথে কোন কাজ করিনি তাই জানিওনা। আমি শুধু আমার নিজের মতামত দিচ্ছি।

আপনারা ট্রাই করে দেখতে পারেন। তবে এদের  কাছে আর্টিকেল সেল করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে চাইলে আপনাকে মিনিমাম ৫০০ টাকা আয় করতে হবে। অর্থাৎ একাধিক আর্টিকেল লিখে ৫০০ টাকা আয় করার পরে আপনি বিকাশে পেমেন্ট পাবেন। 

তাদের সাইটে টেক রিলেটেড অনেক পোস্ট আছে যেগুলো আপনার নলেজ বৃদ্ধিতে হেল্প করতে পারে।

৪। টেক টিউন্স – অনলাইন ইনকামের অন্যতম সাইট

বাংলাদেশের বেশ পুরাতন এবং অনেক পরিচিত একটি সাইট। অনেকের টেক রিলেটেড পথচলার শুরুর সঙ্গি টেক টিউন। বাংলা ভাষায় টেক রিলেটেড আর্টিকেল আগে তেমন একটা পাওয়া যেত না, তখন টেক টিউন ছিলো অন্যতম একটি ওয়েব সাইট।

আপনি তাদের সাইটে ১০ টি আর্টিকেল পোস্ট করার পরে ট্রাস্টেড  রাইটার হতে পারবেন। এই ১০ টি আর্টিকেল লেখার জন্য আপনাকে কোন টাকা দেওয়া হবে না। 

ট্রাস্টেড লেখক হওয়ার পর আপনার লেখার জন্য টাকা দেওয়া হবে। 

যারা টেক টিউনে লেখে তাদের কে টিউনার বলা হয়ে থাকে। 

আপনি যদি নতুন হোন তাহলে উপরের দেওয়া ওয়েব সাইট গুলো থেকে কোন একটি সাইটের সাথে যোগাযোগ করে লেখা শুরু করতে পারেন। যেহেতু আপনি নতুন সেহেতু সবাই আপনাকে সুযোগ নাও দিতে পারে, অনেকে আপনাকে ইউজ করতে পারে সুযোগ নিয়ে। তাই শুরুতেই সব খানে লাফালাফি না করে ট্রাস্টেড কোন সাইটের সাথে কাজ করবেন।

লেখালেখি করে আয় করার অন্যতম একটি শর্ত হলো আপনার লেখা অবশ্যয় ইউনিক হতে হবে। কারো লেখা কপি করে, এদিক সেদিক এডিট করে লেখা দিয়ে আপনি সামনে যেতে পারবেন না। এমন লেখা খুব সহজেই চেক করা যায়। যারা লেখা নিবে তারা এসব ব্যাপারে ভাল ভাবেই জানে। 

তাই কারো লেখা কপি না করে, প্রতারনা না করে বরং আপনার স্কিল বৃদ্ধি করুন। আপনার স্কিল ভালো হলে ইনশা আল্লাহ টাকাও আপনার কাছে আসবে। 

উপসংহারঃ বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করার ক্ষেত্রে শুরুতে ইনকাম কিছুটা কম হবে তবে আপনি যদি স্টুডেন্ট হোন তাহলে ঠিক  মত লেখার কাজ চালিয়ে গেলে আপনার হাত খরচের টাকা আয় করতে পারবেন আশা করি। 

কিভাবে লিখবেন কি করবেন সেসব নিয়ে তো উপরে দেওয়ায় আছে। টিপস গুলো ফলো করুন। বেশি বেশি লেখাপড়া করুন। 

  • আর্টিকেল লিখে আয় করে বিকাশে পেমেন্ট নিন
  • আর্টিকেল কিভাবে  লিখবো?
  • ওয়েব সাইটে আর্টিকেল লিখে আয় করার উপায়?
  • ভাল আর্টিকেল লেখার নিয়ম
  • সাইটে পোস্ট করে আয় করুন  

আপাতত আজকে লেখা শেষ করছি। সালাম।

Leave a Comment